শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:১০ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রৌমারীতে গরিব দুঃখী মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ। তিনবছর আগে নিখোঁজ অতঃপর সেই ব্যক্তিকে জীবত উদ্ধার বাংলাদেশ ব্লাড ডোনার ফাউন্ডেশন নীলফামারী জেলা কমিটি গঠন” নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজিয়েট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিমাই চন্দ্র পালের বিরুদ্ধে গোপনে নিয়োগ প্রদান,স্কুলের গাছ ও মাটি বিক্রির অভিযোগ ভিক্ষুক পূর্নাবাসনেরও হরিলুট রৌমারীতে স্কুলগৃহের দেয়াল চাপা পড়ে দিনমজুরের মৃত্যু সুন্দরগঞ্জে অনলাইন নিউজ পোর্টাল আলোকিত সুন্দরগঞ্জ এর যাত্রা শুরু- শীতার্তদের পাশে মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে দাঁড়িয়েছে(ইউএনও)মোহাম্মদ আল মারুফ নড়াইলে মৎসঘের মালিককে হাতুড়ি পেটা, সদর হাসপাতালে ভর্তি অবশেষে বশেমুরবিপ্রবি’র আলোচিত সেই শিক্ষকের সভাপতি পদ স্থগিত

কুমিল্লার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে কি তথ্য দিলেন অভিনেতা আহমেদ শরীফ

Admin
  • আপডেট সময় : ২৩ অক্টোবর, ২০২১
  • ৭০ বার পঠিত

কুমিল্লার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে কি তথ্য দিলেন অভিনেতা আহমেদ শরীফ?

দেশের বর্তমান সময়ের আলোচিত কুমিল্লার ঘটনায় মুখ খুললেন দেশবরেণ্য চলচ্চিত্র অভিনেতা আহমেদ শরীফ। এক বিব্রতিতে তিনি বলেন, কুমিল্লার ঘটনা ইসলাম ধর্ম অনুসারীদের জন্য অত্যান্ত বেদনাদায়ক। এঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়ে তিনি জানান, একজন মুসলমান হিসেবে এটা মেনে নেওয়া কখনোই সম্ভব নয়।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির প্রাক্তন সভাপতি ও প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক আহমেদ শরীফ বলেন, একই সাথে কুমিল্লার ঘটনা পরবর্তী যে ঘটনাগুলো ঘটছে, মানুষ হিসেবে সেটাও অত্যন্ত লজ্জার বিষয়। ইসলাম হচ্ছে শান্তির ধর্ম, যে কোন পরিস্থিতিতে শান্তি বজায় রেখে কাজ করা হচ্ছে মুসলমানের দায়িত্বের এক অংশ। কিন্তু বর্তমানে যা হচ্ছে তা অত্যন্ত ন্যাক্কারজনক ঘটনা। তিনি আরও বলেন, কোন মুসলিম যেমন চাইবে না পবিত্র কোরান শরীফ মন্দিরে থাকুক, তেমনি কোন হিন্দু ধর্মের মানুষও চাইবে না যে তাদের মন্দিরে পবিত্র কোরান শরীফ থাকুক। অতএব সকলেই চাই, যে যার ধর্ম পালন করতে। কুমিল্লার মন্দিরে এই ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছে। ঘটনার পর ওই মন্দিরে কিন্তু পরিপূর্ণ প্রার্থনা করতে পারেনি। সে জন্য সরকারকে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে, ফেলার জন্যই যে এমন ঘটনা ঘটানো হয়েছে সেটি একদম পরিষ্কার।

বিখ্যাত অভিনেতা আহমেদ শরীফ আরও জানান, আরেকটি বিষয় হলো যে, দায়িত্বশীল মানুষ হিসেবে কোন কথা বলার আগে, ভেবে বলা উচিত। দায়িত্বশীল ব্যাক্তির ভেবে না বলা একটি কথা দেশের মানুষের জন্য ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।
পরিশেষে আসুন মানুষে মানুষে ধর্ম নিয়ে বিভাজন তৈরি না করি। দেশ ও মানুষের ক্ষতি না করে এবং কোন মায়ের মনে কষ্ট দেওয়া থেকে বিরত থাকি। প্রকৃত ইসলাম ধারনের মাধ্যমে, শান্তির ধর্ম শান্তি বজায় রেখে যে কোন পরিস্থিতির মোকাবিলা করায় একজন প্রকৃত মানুষের কাজ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এ্রই রকম আরো সংবাদ