শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ১২:২২ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রৌমারীতে এরশাদ হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে বিক্ষোভ করোনা সংকটে নড়াইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী লোকমান হোসেন ফাউন্ডেশনের অক্সিজেন সিলিন্ডার সেবা শুরু ৩০ মিনিটেই হ্যাটট্রিক ব্রাজিলের রিচার্লিসনের, হারে শুরু আর্জেন্টিনার করোনার তৃতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ডোনেট ফর ভূরুঙ্গামারীর জরুরী প্রস্ততিমূলক সভা সরিষাবাড়ী যমুনা সার কারখানার পরিবেশ দূষণ থেকে বাঁচতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন সাংবাদিক মিলনের মহানুভবতায় বাচলো ৬টি পাখির ছানার প্রাণ। রোগীদের সেবা দিয়ে ঈদ আনন্দ উপভোগ করছেন মনিরামপুর স্বেচ্ছাসেবীরা হরিপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে আপন দুই বোনের মৃত্যু রৌমারীতে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুনি কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে ৫শ দুস্থ্য পরিবার পেল ঈদ উপহার

কুষ্টিয়ার আমলায় প্রতিবন্ধী ও হতদরিদ্রদের মাঝে ঈদ সামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথাা।

Avatar
Saif Uddin
  • আপডেট সময় : ১২ মে, ২০২১
  • ৪১ বার পঠিত

এটুজেড বার্তা ডেস্কঃ-

কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমলা ইউনিয়নের সুযোগ্য

চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা রাত দিন এক করে প্রতিবন্ধী, দুস্থ,

অসহায় ও হতদরিদ্রদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিজ হাতে পৌছে

দিচ্ছেন। করোনাকালীন ২য় ঢেউয়ে অস্বচ্ছল ও কর্মহীন প্রতিবন্ধী, দুস্থ,

অসহায় ও হতদরিদ্রদের মাঝে তিনি যে মানবিক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছেন তার কোন

তুলনা হয় না। এতেকরে আমলা ইউনিয়নবাসীর মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। ইতিপূর্বে

কখনও কেউ এমনভাবে মানুষের পাশে দাড়ায়নি। তার এই মানবিক কার্যক্রমকে আমলা

ইউনিয়নবাসীরা সাদুবাদ জানিয়েছে। এ বিষয়ে প্রতিবন্ধী, দুস্থ, অসহায়,

কর্মহীন ও হতদরিদ্রদের সাথে কথা হলে তারা জানান, করোনা কালীন এই দুঃসময়ে

আমরা কর্মহীন হয়ে পড়েছি। আমার বাসায় খুব কষ্টে দিন যাপন করছি। ঠিক ঐ সময়ে

চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম আমাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। তার এ ঋণ কখনও

শোধ করার নয়।

এদিকে গতকাল তার নিজ এলাকায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ২৫০শতাধিক রোজাদার

ব্যাক্তিদের নিয়ে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেন। ইফতার শেষে প্রতিবন্ধী,

দুস্থ, অসহায় ও হতদরিদ্রদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি বেঁচে

থাকতে আমার ইউনিয়নের একটি মানুষকেউ অনাহারে থাকতে দেবো না। ইতিমধ্যে আমি

প্রধানমন্ত্রীর উপহার সামগ্রী আমার ইউনিয়নবাসীদের মাঝে পৌছে দিয়েছি।

এছাড়াও আমাদের নিজস্ব অর্থায়নে প্রায় ১ হাজারেরও অধিক অস্বচ্ছল ও কর্মহীন

প্রতিবন্ধী, দুস্থ, অসহায় ও হতদরিদ্রদের মাঝে ঈদসামগ্রী ও নগদ অর্থ পৌছে

দিয়েছি। আমি সব সময় চেষ্টা করে চলেছি যাতে আমার ইউনিয়নের একটি মানুষও যেন

অনাহারে না কাটে। পবিত্র ঈদুল ফিতরে ঈদের আনন্দ সবার মাঝে ভাগাভাগি করে

নিয়ে আমার ইউনিয়নবাসীরা সবাই যাতে একটি সুন্দর ঈদ উদযাপন করতে পারে। আমি

এটাই আশা করি। অতিতেও আমি আমার ইউনিয়নবাসীর পাশে ছিলাম, বর্তমানেও আছি,

ভবিষ্যতেও থাকবো।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক, শিক্ষানুরাগী, তরুন সমাজের

অহংকার, অসহায় ও হতদরিদ্রদের জনপ্রিয় ব্যাক্তি সাবেক ছাত্রনেতা রিয়াজ

মালিথা। এই সময় রিয়াজ মালিথা ও চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম মালিথা সকলকে

পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এ্রই রকম আরো সংবাদ