শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০২:১৯ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
জাতির পিতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নড়াইলে প্রবাসী ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে চৌহালীতে ব্লক গ্রান্ট কো-অর্ডিনেশন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রৌমারীতে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের বিক্ষোভ সমাবেশ রৌমারীতে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলেন জেলা প্রশাসন সুন্দরগঞ্জে ছাত্রলীগ/যুবলীগের বাঁধারমুখে জাতীয় পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ পন্ড অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে উলিপুরে সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার না করায় ব্যবসায়ীদের স্বতঃস্ফূর্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা মাদারগজ ব্র্যাকের উদ্যোগে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে চলছে গার্ডার সেতু ও রাস্তার কাজ।

Samrat Khan
  • আপডেট সময় : ১১ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১৩৪ বার পঠিত

নাঈমুর রহমান পটুয়াখালী প্রতিনিধি,

তারিখঃ ১১/০১/২০২২ইং।

কলাপাড়ার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের মধুখালী খালের মধ্যে ড্রেজার বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এর ফলে বিভিন্ন ফসলি জমি ধসে যাচ্ছে এবং হুমকির মুখে পড়ছে পরিবেশ। স্থানীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এসব ড্রেজার দিয়ে গ্রামাঞ্চলের খাল, বিল ও পুকুর থেকে যত্রতত্র ভূগর্ভস্থ বালু উত্তোলন করায় আতঙ্কে রয়েছেন এলাকাবাসী। বছরের পর বছর ধরে ড্রেজার মালিকরা এ অবৈধ কাজটি করে যাচ্ছে প্রভাবশালী মহল। জানা গেছে, ড্রেজার দিয়ে উত্তোলনকৃত বালুর বেশিরভাগই স্থানীয় ঠিকাদাররা তাদের নির্মাণ কাজে ব্যবহার করে। সড়ক ও সরকারি স্থাপনার মেঝে ভরাট করা হচ্ছে এ বালু দিয়ে। ভূগর্ভস্থ এ বালুতে কাদামাটির পরিমাণ বেশি থাকে।

ফলে মাটি মিশ্রিত এ বালু দিয়ে তৈরি গার্ডার সেতু, কালবাট সড়ক ও স্থাপনা টেকসই না হওয়ায় প্রতিবছর সরকারের উন্নয়ন কাজের কোটি কোটি টাকা গচ্চা যাচ্ছে। তাছাড়া কম খরচে ও সহজ পদ্ধতিতে বালু পাওয়ায় ঠিকাদারদের পাশাপাশি বসতবাড়ি নির্মাণেও অনেকে পরিবেশ বিধ্বংসী এই ড্রেজার ব্যবহার করছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন স্থানে এভাবে অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের কাজ চলমান রয়েছে। অবৈধ মেশিনগুলোর মালিকরা ঘুরে ঘুরে গ্রামের পরিত্যক্ত খাল, ডোবা ও পুকুর থেকে বালু উত্তোলন করছে। উপজেলার মধুখালী এলাকায় ছোট একটি খালের মাঝখানে অবৈধ ড্রেজার বসিয়েছে বালু উত্তালন করছেন সয়োন নামের স্থানীয় এক যুবলীগ নেতা।

তিনি মাধুখালী গার্ডার সেতুর পশ্চিম পাশে বক্সে বালু দিচ্ছেন। খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে হুমকিতে পড়েছে খালের দুপাশের ফসলি জমি । এলাকাবাসী বিভিন্ন সময় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের বিষয়টি জানালেও তা কোনো কাজে আসছে না বলেও অভিযোগ করেছেন। মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের মধুখালী বজার সংলগ্ন কাজ চলমান গার্ডার সেতুর ২০/৩০ ফুট পাশেই অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন করছেন ড্রেজার মালিক নুরআলম ও সোহাগ। নুরআলম জানান, স্থানীয় যুবলীগ নেতা সয়োন হাওলাদার ও আফজাল মিরা নামের ব্যক্তিরা তাদের ভারা করে আনে খাল থেকে বালু উত্তোলনের জন্য, নুরআলম বলেন আমি যেতে চাইনি তারা নেতা মানুষ জোর জুলুম করে মেসিন ও মালামাল নিয়ে এ ড্রেজার বসিয়েছেন। এছাড়াও ড্রেজার মালিকরা জানান তারা কিছুদিন আগেও পক্ষিয়া বাজার সংলগ্ন দীর্ঘ তিন কিলোমিটার রাস্তার কাজ নদী থেকে বালু উঠিয়ে করে আসছেন।

গার্ডার সেতুর সাব’ঠিকাদার সয়োন হাওলাদারের কাছে জানতে চাইলে সে জানান, আমি ড্রেজার বসিয়ে বালুর যে কাজটি করছি এ বিষয়ে ইউএনও, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান অবগত আছেন। তারা আমাকে কাজটি করতে বলছেন এবং সবাইকে জানিয়েই আমি কাজটি করতেছি। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও কলাপাড়া উপজেলা সহাকরী কমিশনার (ভূমি) জগৎ বন্ধু মন্ডল জানান, অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বরদাশ্ত করা যাবে না, এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার (উইএনও) জানান, গার্ডার সেতুর মুল ঠিকাদার বিল টাকা উঠিয়ে নেয়ার পরে আর কাজ করেনি। দু পাড়ের লোকজন হাটার জন্য,বাকি কাজটি স্থায়ীভাবে একজনকে করার জন্য বলা হয়েছে বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন সবাই অবগত আছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.


এ্রই রকম আরো সংবাদ