শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রৌমারীতে এরশাদ হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে বিক্ষোভ করোনা সংকটে নড়াইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী লোকমান হোসেন ফাউন্ডেশনের অক্সিজেন সিলিন্ডার সেবা শুরু ৩০ মিনিটেই হ্যাটট্রিক ব্রাজিলের রিচার্লিসনের, হারে শুরু আর্জেন্টিনার করোনার তৃতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ডোনেট ফর ভূরুঙ্গামারীর জরুরী প্রস্ততিমূলক সভা সরিষাবাড়ী যমুনা সার কারখানার পরিবেশ দূষণ থেকে বাঁচতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন সাংবাদিক মিলনের মহানুভবতায় বাচলো ৬টি পাখির ছানার প্রাণ। রোগীদের সেবা দিয়ে ঈদ আনন্দ উপভোগ করছেন মনিরামপুর স্বেচ্ছাসেবীরা হরিপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে আপন দুই বোনের মৃত্যু রৌমারীতে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুনি কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে ৫শ দুস্থ্য পরিবার পেল ঈদ উপহার

পাবনার রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া টাকা থানায় জমা দিলেন নাটোরের পুলিশ কনস্টবল নওশের । 

a2zbarta com
a2zbarta com
  • আপডেট সময় : ৮ জুলাই, ২০২১
  • ৩৯ বার পঠিত

পাবনার রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া টাকা থানায় জমা দিলেন নাটোরের পুলিশ কনস্টবল নওশের ।
পাবনা প্রতিনিধিঃ
পাবনার ভাঙ্গুড়া পৌরসভার হাসপাতাল মোড়ে পাকা রাস্তার উপর একটি কাগজের প্যাকেট দেখতে পান। কৌতুহল বসত তিনি উক্ত প্যাকেটটি হাতে নেন এবং প্যাকেটের মধ্যে টাকার ব্যান্ডিল দেখতে পান। তিনি বাস স্ট্যান্ড এলাকায় পুলিশের গাড়ী দেখতে পেয়ে তাৎক্ষণিক গাড়ীর নিকট আসেন এবং উপস্থিত ওসি ভাংগুড়া থানা কে জানান যে, তিনি একজন পুলিশ সদস্য এবং ছুটি শেষে থানায় যোগদানে যাওয়ার পথে হাসপাতাল মোড়ে পাকা রাস্তার উপর একটি কাগজের প্যাকেট পড়ে পেয়েছেন এবং উক্ত প্যাকেটের মধ্যে টাকা আছে।
তিনি হলেন কং/৮০৮ মোঃ নওশের আলী, বর্তমানে জেলা পুলিশ নাটোরের বড়াইগ্রাম থানায়  ড্রাইভার হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি গত  ২৯ জুলাই ২০২১ ইং  তারিখ নৈমিত্তিক ছুটি নিয়ে তার নিজ বাড়ী পাবনার ভাঙ্গুড়া থানাধীন ভদ্রপাড়া গ্রামে আসেন। ছুটি শেষে সোমবার ( ৬ জুলাই) ২০২১ ইং তারিখ নাটোরের  বড়াই গ্রাম থানায় যোগদানের উদ্দেশ্যে যাওয়ার পথে মধ্যে ভাঙ্গুড়া পৌরসভার হাসপাতাল মোড়ে পাকা রাস্তার উপর একটি কাগজের প্যাকেট দেখতে পান। প্যাকেটে টাকা আছে বুঝতে পেরে তিনি স্থানীয় থানা পুলিশে যোগাযোগ করেন।
উক্ত প্যাকেট থেকে টাকাগুলো বাহির করে গননা করলে ১০০০×১৬ = ১৬,০০০/-, ৫০০×২০= ১০,০০০/-, ১০০×১০০ = ১০,০০০/- সর্ব মোট ৩৬,০০০/- (ছত্রিশ হাজার) টাকা হয়।
ভাঙ্গুরা  থানার অফিসার ইনচার্জ মু. ফয়সাল বিন আহসানের  প্রচেষ্টায় বর্ণিত ঘটনা সংক্রান্তে টাকার প্রকৃত মালিক মোঃ আলমগীর হোসেন  কে সনাক্ত করা হয়।  মোঃ আলমগীর হোসেন (৪০), সিনিয়র অফিসার, বড়ালব্রীজ শাখা, অগ্রণী ব্যাংক, ভাঙ্গুরা, পাবনায় কর্মরত আছেন। তিনি পাবনার চাটমোহর থানাধীন মথুরাপুর গ্রামের  মৃত আব্দুল মালেক এর পুত্র। টাকার প্রকৃত মালিক মোঃ আলমগীর হোসেন কে  সনাক্ত পূর্বক  তার  নিকট  ৩৬,০০০/ ছত্রিশ হাজার টাকা বুঝিয়ে দেয়া হয়।
ভাঙ্গুড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি)  মু. ফয়সাল বিন আহসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
পাবনা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর প্রত্যেকটি সদস্য  সৎ  দক্ষ ও নৈতিকতার দিক থেকে নিজেদের  যোগ্যতার প্রমান দিয়ে চলেছেন প্রতিনিয়ত। কনস্টেবল নওশের আলী পুলিশ বাহিনীর একজন গর্বিত সদস্য।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এ্রই রকম আরো সংবাদ