শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রৌমারীতে গরিব দুঃখী মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ। তিনবছর আগে নিখোঁজ অতঃপর সেই ব্যক্তিকে জীবত উদ্ধার বাংলাদেশ ব্লাড ডোনার ফাউন্ডেশন নীলফামারী জেলা কমিটি গঠন” নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজিয়েট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিমাই চন্দ্র পালের বিরুদ্ধে গোপনে নিয়োগ প্রদান,স্কুলের গাছ ও মাটি বিক্রির অভিযোগ ভিক্ষুক পূর্নাবাসনেরও হরিলুট রৌমারীতে স্কুলগৃহের দেয়াল চাপা পড়ে দিনমজুরের মৃত্যু সুন্দরগঞ্জে অনলাইন নিউজ পোর্টাল আলোকিত সুন্দরগঞ্জ এর যাত্রা শুরু- শীতার্তদের পাশে মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে দাঁড়িয়েছে(ইউএনও)মোহাম্মদ আল মারুফ নড়াইলে মৎসঘের মালিককে হাতুড়ি পেটা, সদর হাসপাতালে ভর্তি অবশেষে বশেমুরবিপ্রবি’র আলোচিত সেই শিক্ষকের সভাপতি পদ স্থগিত

বশেমুরবিপ্রবিতে ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পেতে যাচ্ছেন ৮ শিক্ষার্থী

মোঃ রহিম বাদশা, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ২৪ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৮১ বার পঠিত

‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক-২০১৯’ পেতে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি), গোপালগঞ্জ এর ৮ শিক্ষার্থী। প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক-২০১৯ এর জন্য ইউজিসিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক মনোনীত বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮ জন শিক্ষার্থী হলেনঃ

(১) বিজ্ঞান অনুষদের পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ আল আমিন,
(২) মানবিক অনুষদের বাংলা বিভাগ থেকে তনিমা সুলতানা,
(৩) সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সমাজবিজ্ঞান বিভাগ থেকে রফিকুল ইসলাম,
(৪) বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ থেকে অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের শিক্ষার্থী এস এম ইসমাইল হোসেন,
(৫) আইন অনুষদ থেকে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী সুলতানা আঞ্জুমান,
(৬) ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদ থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী মোঃ হাফিজুর রহমান;
(৭) কৃষি অনুষদ থেকে কৃষি বিভাগের শিক্ষার্থী জেসমিন আক্তার; এবং
(৮) জীব বিজ্ঞান অনুষদের বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের সজল রায়।

বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মোরাদ হোসেন।

তিনি এ বিষয়ে আরো বলেন, “সম্প্রতি ইউজিসি থেকে ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক-২০১৯’ এর জন্য শিক্ষার্থীদের নামের তালিকা চাওয়া হলে অনুষদ ভিত্তিক সর্বোচ্চ ফলাফলের ভিত্তিতে ৮ শিক্ষার্থীর নাম পাঠানো হয়েছে।”

মনোনীত হওয়া আইন অনুষদ থেকে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী সুলতানা আঞ্জুমান বলেন, ” প্রথম থেকেই প্রথম হওয়ার স্বপ্ন ছিল। সেই প্রচেষ্টা থেকেই প্রথম হওয়া। অনার্সের প্রথম থেকেই চেষ্টা করেছি যেনো প্রত্যেকটি সেমিস্টার পরীক্ষা ভালো হয়। সবসময়ই ভাবনা ছিল সব পরীক্ষায় সবার থেকে ভালো করার এবং সর্বোচ্চ নাম্বার পাওয়ার। তাই প্রতিনিয়তই চেষ্টা করেছি সব পরীক্ষায় সবার থেকে কিভাবে ভালো করা যায়।”

মনোনীত হওয়া অপর এক শিক্ষার্থী মানবিক অনুষদের বাংলা বিভাগ থেকে তনিমা সুলতানা বলেন, ” প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাওয়া সত্যি গর্বের বিষয়। প্রথম থেকেই চেষ্ঠা ছিল ভালো কিছু করার। সেই থেকে শুরু। অনার্সের প্রথম সেমিস্টার থেকে নিয়মিত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। চেষ্টা করেছি সবার থেকে একটু আলাদাভাবে উপস্থাপন করার। এই প্রচেষ্ঠাগুলো আমার ভালো রেজাল্ট অর্জনে যথেষ্ঠ সহায়তা করেছে।
ভবিষ্যতে আরো ভালো করা যায় সেই চেষ্টা করছি।
প্রচেষ্টা এবং ধৈর্যের ফলস্বরূপ ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ সত্যি অনেক আনন্দের।”

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এ্রই রকম আরো সংবাদ