শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
জাতির পিতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নড়াইলে প্রবাসী ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে চৌহালীতে ব্লক গ্রান্ট কো-অর্ডিনেশন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রৌমারীতে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের বিক্ষোভ সমাবেশ রৌমারীতে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলেন জেলা প্রশাসন সুন্দরগঞ্জে ছাত্রলীগ/যুবলীগের বাঁধারমুখে জাতীয় পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ পন্ড অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে উলিপুরে সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার না করায় ব্যবসায়ীদের স্বতঃস্ফূর্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা মাদারগজ ব্র্যাকের উদ্যোগে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে শিক্ষা কর্মকর্তাকে মারধরের অভিযোগ মেয়রের বিরুদ্ধে

Samrat Khan
  • আপডেট সময় : ১৭ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১০০ বার পঠিত

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে শিক্ষা কর্মকর্তাকে মারধরের অভিযোগ মেয়রের বিরুদ্ধে

দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধিঃ

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. শাহনেওয়াজ শাহানশাহ মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে থাপ্পড় মেরেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাতটার দিকে দেওয়ানগঞ্জ সরকারি হাইস্কুল মাঠে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

ওই শিক্ষা কর্মকর্তার নাম মো. মেহের উল্লাহ। তিনি দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত। বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানের উপস্থাপক ছিলেন তিনি। নাম ঘোষণার তালিকা নিয়ে মেয়র তাঁকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে থাপ্পড় মারেন বলে অভিযোগ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দেওয়ানগঞ্জ সরকারি হাইস্কুল মাঠে উপজেলা প্রশাসন বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ওই অনুষ্ঠানের উপস্থাপকের দায়িত্ব পালন করেন শিক্ষা কর্মকর্তা মেহের উল্লাহ। ভোর থেকে ওই মাঠের শহীদ মিনারে উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ফুলের শ্রদ্ধা নিবেদন করছিল। এ সময় দেওয়ানগঞ্জ পৌরসভার মেয়র শাহনেওয়াজ শাহানশাহ ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যান। উপস্থাপক শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য মাইকে প্রশাসন ও বিভিন্ন সংগঠনের নাম ঘোষণা করছিলেন। পৌরসভার নাম ৫ নম্বরে ঘোষণা করার কারণে মেয়র প্রকাশ্যে ওই শিক্ষা কর্মকর্তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং তাঁকে থাপ্পড় মারেন।

শিক্ষা কর্মকর্তা মেহের উল্লাহ মুঠোফোনে বলেন, বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে উপজেলা প্রশাসন তাঁকে উপস্থাপনের দায়িত্ব দেয়। একই সঙ্গে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য প্রশাসনের একটি তালিকাও দেয়। ওই তালিকায় পৌরসভার নামটি ছিল ৫ নম্বরে। তালিকা অনুযায়ী তিনি নামগুলো ঘোষণা করছিলেন। ৫ নম্বরে পৌরসভার নাম ঘোষণার কারণে মেয়র প্রথমে তাঁকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। পরে সবার উপস্থিতিতে মেয়র তাঁকে থাপ্পড় মারেন। তিনি বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কামরুন্নাহার শেফাকে লিখিতভাবে জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.


এ্রই রকম আরো সংবাদ