শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
জাতির পিতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নড়াইলে প্রবাসী ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে চৌহালীতে ব্লক গ্রান্ট কো-অর্ডিনেশন কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রৌমারীতে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের বিক্ষোভ সমাবেশ রৌমারীতে বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলেন জেলা প্রশাসন সুন্দরগঞ্জে ছাত্রলীগ/যুবলীগের বাঁধারমুখে জাতীয় পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ পন্ড অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে উলিপুরে সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার না করায় ব্যবসায়ীদের স্বতঃস্ফূর্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা মাদারগজ ব্র্যাকের উদ্যোগে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

মেডিকেল টেকনোলজিস্ট পদে নিয়োগ চেয়ে স্বাস্থ্য সচিব ও ডিজি বরাবর লিগ্যাল নোটিশ।  

সোহেল রানা
  • আপডেট সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০২১
  • ২৪২ বার পঠিত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ

মেডিকেল টেকনোলজিস্ট, মেডিকেল টেকনিশিয়ান এবং কার্ডিওগ্রাফার পদে নিয়োগ চেয়ে ৩০০ শিক্ষার্থী একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি)সহ সংশ্লিষ্ট চারজনকে এ নোটিশ পাঠানো হয়।

পরীক্ষার্থীদের পক্ষে বৃহস্পতিবার এ নোটিশ পাঠান অ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলম।

নিয়ম অনুযায়ী লিখিত পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হওয়ার পর  মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহন করানোর পর  ফল প্রকাশ না করে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট, মেডিকেল টেকনিশিয়ান ও কার্ডিওগ্রাফার পদের  নিয়োগ বাতিল করায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয় । লিগ্যাল নোটিশে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এসব প্রার্থীদের নিয়োগের বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে এর প্রতিকার চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হবে। লিগ্যাল নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি প্রতিবেদক কে  নিশ্চিত করেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলম।

বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) ডাকযোগে সংশ্লিষ্টদের প্রতি তিনশ নিয়োগ প্রত্যাশী প্রার্থীর হয়ে এসএম মোস্তাফিজুর রহমানের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের এই আইনজীবী লিগ্যাল নোটিশ পাঠান।

শিক্ষার্থীদের পক্ষে আইনজীবী অ্যাডভোকেট শেখ জাহাঙ্গীর আলম  বলেন, ‘আমরা চাকরি প্রার্থী। সরকার আমাদেরকে নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছেন, নিয়ম অনুযায়ী আবেদন করেছি। এরপরে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহনের  জন্য প্রবেশপত্র দিয়েছে। তারপরে নির্দিষ্ট তারিখে অংশগ্রহণও করেছি। লিখিত  পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পরে মৌখিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করার মধ্য দিয়ে চুড়ান্ত ফলাফলের জন্য অপেক্ষায় আছি । কোভিডের মধ্যে  আমরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সকল পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছি। কিন্তু এই মৌখিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ না করে নিয়োগ বাতিল করা হয়েছে। এখন কোনো উপায় না পেয়ে সরকারের সংশ্লিষ্টদের প্রতি লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছি। আমরা সুবিচার ও প্রতিকার চাই,  আমরা মহামান্য হাইকোর্টে রিট করারও প্রস্তুতি নিয়েছি। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে আমরা নিরুপায়। ”

জানা যায়, গত ২০ সেপ্টেম্বর অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে মেডিকেল টেকনোলজিস্ট, টেকনিশিয়ান এবং কার্ডিওগ্রাফে ২ হাজার ৬৮৯টি পদে  নিয়োগ বাতিল করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ২৯ জুন মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের ৮৮৯টি, মেডিকেল টেকনিশিয়ানদের ১ হাজার ৬৫০টি এবং কার্ডিওগ্রাফার পদে ১৫০ জনসহ মোট ২ হাজার ৬৮৯টি পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

মেডিকেল টেকনোলজিস্ট ও কার্ডিওগ্রাফের বিপরীতে ২৩ হাজার ৫২২ জন ও মেডিকেল টেকনিশিয়ান পদের বিপরীতে অর্ধলাখ আবেদন জমা পড়ে।

এরপর গত বছরের ১২ ডিসেম্বর টেকনোলজিস্ট পদে লিখিত পরীক্ষা হয়। আর ১৮-১৯ ডিসেম্বর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় টেকনিশিয়ান পদে।

এরপর চলতি বছরের ২২ ফেব্রুয়ারি মেডিকেল টেকনোলজিস্ট এবং ১০ মার্চ টেকনিশিয়ানের মৌখিক পরীক্ষা শেষ হয়।

লিখিত পরীক্ষার পরই অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। বিভিন্ন পত্র পত্রিকা ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া সহ গনমাধ্যমে এ সংক্রান্ত দূর্নীতির অভিযোগে নিউজ প্রকাশিত হতে থাকে। ফলে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়  অভিযোগ তদন্তে গত ১৩ এপ্রিল গঠন করে তদন্ত কমিটি।কমিটির দাখিল করা প্রতিবেদনের আলোকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক নিয়োগের বিষয়ে একটি  নির্দেশনা প্রদান করেন।

নির্দেশনায় বলা হয়, তদন্ত প্রতিবেদনে লিখিত পরীক্ষার খাতায় অস্পষ্টতা পাওয়া গেছে বলে উল্লেখ রয়েছে। তাই নিয়োগ কার্যক্রম বাতিল করে পুনরায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার ব্যবস্থা করা হোক।

মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপ-সচিব (প্রশাসন-১ অধিশাখা) আনজুমান আরা স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। এতে জানানো হয়, আবার নতুন করে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দ্রুত নিয়োগ কার্যক্রম শুরু হবে। তবে ইতোপূর্বে যারা আবেদন করেছেন তাদের নতুনভাবে আবেদন করতে হবে না। তারা নতুন নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.


এ্রই রকম আরো সংবাদ