শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০৩:২৫ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
রৌমারীতে এরশাদ হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার দাবিতে বিক্ষোভ করোনা সংকটে নড়াইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী লোকমান হোসেন ফাউন্ডেশনের অক্সিজেন সিলিন্ডার সেবা শুরু ৩০ মিনিটেই হ্যাটট্রিক ব্রাজিলের রিচার্লিসনের, হারে শুরু আর্জেন্টিনার করোনার তৃতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ডোনেট ফর ভূরুঙ্গামারীর জরুরী প্রস্ততিমূলক সভা সরিষাবাড়ী যমুনা সার কারখানার পরিবেশ দূষণ থেকে বাঁচতে এলাকাবাসীর মানববন্ধন সাংবাদিক মিলনের মহানুভবতায় বাচলো ৬টি পাখির ছানার প্রাণ। রোগীদের সেবা দিয়ে ঈদ আনন্দ উপভোগ করছেন মনিরামপুর স্বেচ্ছাসেবীরা হরিপুরে পুকুরের পানিতে ডুবে আপন দুই বোনের মৃত্যু রৌমারীতে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুনি কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে ৫শ দুস্থ্য পরিবার পেল ঈদ উপহার

সাঁথিয়ায় স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কের সন্দেহে অটো চালক খুন,৭২ ঘন্টার মধ্যেই অপরাধী শনাক্ত ও গ্রেফতার।

a2zbarta com
a2zbarta com
  • আপডেট সময় : ১৬ জুন, ২০২১
  • ৪৭ বার পঠিত

সাঁথিয়ায় স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কের সন্দেহে অটো চালক খুন,৭২ ঘন্টার মধ্যেই অপরাধী শনাক্ত ও গ্রেফতার।


‘গ্রেপ্তার হওয়া শীলা খাতুনের বাড়িতে যাতায়াত ছিল উপজেলার গোসাইপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সেলিম মিয়ার। এ থেকে শীলার সঙ্গে সেলিমের সম্পর্ক রয়েছে বলে সন্দেহ করতে শুরু করেন তাঁর স্বামী আল-আমীন।” প্রাথমিক ভাবে ছিনতাইয়ের ঘটনা মনে হলেও এটা ছিলো পরিকল্পিত হত্যা।।

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ
পাবনার সাঁথিয়ায় অটোরিকশাচালক সেলিম মিয়াকে (২৮) হত্যা ও তাঁর গাড়ি ছিনতাইয়ের রহস্য উদ্‌ঘাটনের করেছে পুলিশ। পুলিশ তদন্তে নিশ্চিত হয় , একজনের স্ত্রীর সঙ্গে সেলিমের সম্পর্কের সন্দেহ থেকে এ খুনের পরিকল্পনা হয়। আর্থিকভাবে লাভবান হতে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাটি বিক্রি করেন খুনের ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিরা।ছিনতাইয়ের ঘটনায় অটোরিকশা চালক খুন প্রাথমিক ধারনায় তেমন মনে হলেও এটি পরিকল্পিত হত্যা।

মঙ্গলবার (১৫ জুন ২০২১) সকালে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করে এ কথা বলেন পাবনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম। তিনি বলেন, খুনের ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া পাঁচজন জিজ্ঞাসাবাদে এসব কথা স্বীকার করেছে ওই পাঁচজন। তারা হলেন সাঁথিয়া উপজেলার ছোন্দহ গ্রামের রাসেল হোসেন (২২) এবং বহাল বাড়িয়া পূর্বপাড়া গ্রামের রানা শেখ (৩১), শীলা খাতুন (২১), হোসেন আলী (১৮) ও দেলোয়ার হোসেন (৩৮)। পুলিশ বলছে, হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আল-আমীন (৩০) শীলা খাতুনের স্বামী এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। আল-আমীন কে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান বলেন, নিহত সেলিম মিয়া ও গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিরা পূর্বপরিচিত। গ্রেপ্তার হওয়া শীলা খাতুনের বাড়িতে যাতায়াত ছিল উপজেলার গোসাইপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সেলিম মিয়ার। এ থেকে শীলার সঙ্গে সেলিমের সম্পর্ক রয়েছে বলে সন্দেহ করতে শুরু করেন তাঁর স্বামী আল-আমীন। একপর্যায়ে শীলা স্বামীকে বলেন, সেলিম তাঁকে বিভিন্ন সময়ে উত্যক্ত করেছেন। এ কথা জানার পর গ্রেপ্তার হওয়া অন্যদের নিয়ে সেলিমকে খুনের পরিকল্পনা করেন তিনি। পরিকল্পনা অনুযায়ী, তাঁরা ৯ জুন বিকেলে সেলিম মিয়ার অটোরিকশাটি বেড়ানোর কথা বলে ভাড়া নেন। উপজেলার ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের কালুকাটা গ্রামের একটি নির্জন মাঠে যান। সেখানে সেলিম মিয়াসহ সবাই মিলে গাঁজা সেবন করেন। নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়লে রাত নয়টার দিকে সেলিমকে পিটিয়ে ও পায়ের রগ কেটে হত্যা করেন গ্রেফতার হওয়া ব্যক্তিরা। পরে তাঁরা সেলিমের অটোরিকশাটি ৩১ হাজার ৫০০ টাকায় বিক্রি করে সেই টাকা ভাগাভাগি করে নেন সবাই।

১০ জুন সকালে কালুকাটা গ্রামের ওই মাঠ থেকে সেলিমের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় তাঁর বাবা তোফাজ্জল হোসেন অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে হত্যা মামলা করেন।

পুলিশ বলছে, ঘটনার পর পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায় পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মাসুদ আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বেড়া সার্কেল) জিল্লুর রহমান ও সাঁথিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলামকে নিয়ে চৌকস একটি দল গঠন করা হয়। পুলিশ সুপারের নির্দেশনা অনুযায়ী দলটির সদস্যরা তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রথমে ঢাকার ধামরাই থেকে রাসেল হোসেন ও রানা শেখকে আটক করে। পরে তাঁদের দুইজনের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অন্যদের গ্রেফতার করে পুলিশ । তাঁরা পাবনার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে খুনের ঘটনার বিস্তারিত তথ্য দিয়েছেন।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান। বিপিএম বলেন, হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আল-আমীন। তিনি হত্যার ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দিয়ে আছেন এমন তথ্যে নিশ্চিত হয়ে আমাদের অনুসন্ধানে পুরো বিষয়টি সামনে চলে আসে । আল আমিন কে গ্রেপ্তারে আমাদের টিম কাজ করছে ও পুলিশ অভিযান চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এ্রই রকম আরো সংবাদ